করোনার মধ্যে এবার খরচ বাড়ছে যাত্রীবাহী ফ্লাইটে

অনলাইন ডেস্ক প্রকাশিত: ১৬ আগস্ট, ২০২০

করোনা ভাইরাসের এ সময় এবার প্লেন ভ্রমণের খরচও বাড়ছে। রবিবার (১৬ আগস্ট) থেকে বিমানবন্দর ব্যবহার করে প্লেনে কোথাও গেলেই বাড়তি ফি গুণতে হবে যাত্রীদের।

এ বাড়তি ফি প্লেন ভ্রমণে যাত্রীদের কিছুটা হলেও নিরুৎসাহিত করবে বলে মনে করছেন এয়ারলাইন্স সংশ্লিষ্টরা। গত জুলাই মাসে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) বিমানবন্দর ব্যবহারে নতুন নোটিশ জারি করে। বিমানবন্দরের উন্নয়ন ও নিরাপত্তা শক্তিশালী করার জন্য ১৬ আগস্ট থেকে নতুন ফি আরোপ করার সিদ্ধান্ত জানায় বেবিচক।

ফলে রবিবার থেকে প্লেন ভ্রমণে বাড়তি খরচ যোগ হচ্ছে। প্লেনের টিকিটের সঙ্গে ভ্যাট বাবদ এ ফি কেটে নেওয়া হবে। ভ্রমণকারীর গন্তব্যের ওপর ভিত্তি করে টিকিটের মূল্য ভিন্ন হবে। বেবিচকের নির্দেশনা অনুযায়ী, যারা ১৬ আগস্টের টিকিট ইতোমধ্যে কেটেছেন, তাদের বর্ধিত ফি পরিশোধ করতে হয়েছে। রোববার থেকে ভ্রমণ করলে বর্ধিত ফি নেবে সব এয়ারলাইন্স।

বেবিচক বলছে, সার্কভুক্ত দেশগুলোতে যাওয়া যাত্রীদের প্রতি টিকিটের জন্য উন্নয়ন ফি হিসেবে ৫ ডলার ও নিরাপত্তা ফি হিসেবে ৬ ডলার করে দিতে হবে। আন্তর্জাতিক গন্তব্যে যাওয়া যাত্রীদের প্রতি টিকেটে ১০ ডলার করে বাড়তি ফি দিতে হবে। অন্যদিকে অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচলকারীদের প্রতি টিকিটের জন্য উন্নয়ন ফি দিতে হবে ১০০ টাকা ও নিরাপত্তা ফি ৭০ টাকা। অর্থাৎ অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রীদের খরচ বাড়লো ১৭০ টাকা।

নোটিশে বলা হয়, যাত্রীদের শতকরা ১৫ ভাগ ভ্যাট দিতে হবে। এটিই নতুন আরোপিত সর্বাধিক ফি। এ ব্যাপারে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, বিমানবন্দরে যাত্রীসেবার মান বাড়ানোর জন্যই মূলত এ ফি আরোপ করা হয়েছে। এ অর্থ দিয়ে বিমানবন্দরের উন্নয়ন করা হবে।

আরও সংবাদ