• ঢাকা
  • বুধবার, ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২২ অক্টোবর, ২০২০
সর্বশেষ আপডেট : ২২ অক্টোবর, ২০২০

গণবিক্ষোভের মুখে থাইল্যান্ডে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার

অনলাইন ডেস্ক

শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বে পরিচালিত গণবিক্ষোভের জেরে অবশেষে কিছুটা পিছু হটলো থাইল্যান্ডের প্রশাসন। বিক্ষোভ দমনে জারি করা জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর এক আদেশে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করা হয়। এর আগে প্রধানমন্ত্রী ও রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে মাসব্যাপী বিক্ষোভ ঠেকাতে এটি জারি করা হয়েছিল।

রয়েল গেজেটের একটি ঘোষণায় বলা হয়, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছিল; এটি সমাধান হওয়ায় স্থগিত করা হল। বর্তমান পরিস্থিতিতে ব্যাংককে এখন সাধারণ আইন প্রয়োগ করা হবে।
গণতন্ত্রপন্থী আন্দোলনকারীদের দাবি, থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ এবং রাজার ক্ষমতা কমিয়ে আনা। বিক্ষোভ দমনে গত বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) জরুরি অবস্থা জারি করে দেশটির সরকার। এতে চারজনের বেশি মানুষের জমায়েত ও কারফিউ আরোপ করা হয়। তবে কারফিউ উপেক্ষা করে বিক্ষোভে আরও বেশি সংখ্যক মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

গত তিনমাস ধরে রাজতন্ত্রের সংস্কারের দাবি তুলেছেন বিক্ষোভকারীরা। তারা আরও গণতান্ত্রিক আধিকার চেয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে থাইল্যান্ডে রাজপরিবারের সমালোচনা করা নিষিদ্ধ হলেও সম্প্রতি বিক্ষোভকারীরা রাজা ও রানির গাড়ি রাস্তায় আটকে দেয়। এর ফলে দমনপীড়ন নীতির মাধ্যমেই আন্দোলন দমানোর চেষ্টা করেছিল সরকার। কিন্তু জনরোষ বৃদ্ধি পাওয়ার জেরে এখন ক্রমশই পিছু হটছে।

আরও পড়ুন