• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর, ২০২০
সর্বশেষ আপডেট : ২৫ অক্টোবর, ২০২০

আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের আশ্বাস, অনশন ভাঙালেন মেয়র

অনলাইন ডেস্ক

সিলেটে রায়হান হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত এস আই আকবর সহ সকল আসামি গ্রেফতারের দাবিতে আমরন অনশনরত রায়হানের মা সালমা বেগম ও স্বজনদের অনশন ভাঙালেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরি।
এর আগে, রবিবার সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে বন্দর বাজার ফাঁড়ির সামনে মাথায় কাফনের কাপড় বেধে অনশণ শুরু করেন রায়হানের মা সালমা বেগম। তার সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন আত্মীয়স্বজনসহ আরও অনেকে। অনশনে আরও যোগ দেন হকার, মার্কেট ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা।

এসময় নিহত রায়হানের মা সালমা বেগম জানান, এখনো মূল অভিযুক্ত আকবর গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষুব্ধ তারা। এছাড়া বরখাস্ত ও প্রত্যাহার হওয়া সকল পুলিশ সদস্যদের দ্রুত গ্রেফতার দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, আমার বুকের ধন একমাত্র ছেলেকে কেড়ে নিয়েছে এই ফাঁড়ির সাবেক ইনচার্জ এসআই আকবর ও তার সহযোগীরা। বর্বরোচিতভাবে নির্যাতন করে আমার ছেলেকে হত্যা করেছেন তারা। আমি এ হত্যাকারীদের বিচার চাই। আর না হয়, আমার ছেলেকে মেরেছে, আমাকেও গুলি করে মারা হোক।

তিনি বলেন, আমার ছেলের হত্যাকারী এসআই আকবরকে না ধরা পর্যন্ত আমি এখানেই অবস্থান করব। এ কর্মসূচি কোনো দলীয় কর্মসূচি নয়। তাই দলমত নির্বিশেষে সবাইকে অংশ নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

সালমা বেগম বলেন, আমার ছেলেকে এ ফাঁড়িতে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার আজ ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও এসআই আকবরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। এ ছাড়া পুলিশ হেফাজতে থাকা আকবরের সহযোগীদেরও গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে না। এসআই আকবর ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিলে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে বলেও দাবি রায়হানের মায়ের।

প্রসঙ্গত, গত ১১ অক্টোবর সিলেটের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে টাকার জন্য অমানবিক নির্যাতন করা হয় নগরীর নেহারিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রায়হানকে (৩৩)। ভোরে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় রোববার রাতে সিলেট কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন নিহত রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি।

আরও পড়ুন

  • এক্সক্লুসিভ এর আরও খবর