• ঢাকা
  • শনিবার, ৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২ নভেম্বর, ২০২০
সর্বশেষ আপডেট : ২ নভেম্বর, ২০২০

মুক্তিযোদ্ধা চাচাকে বাবা বানিয়ে ভাতা তুলতেন ভাতিজা

অনলাইন ডেস্ক

ঠাকুরগাঁওয়ে সদর উপজেলার রাজাগাঁও ইউনিয়নের উত্তর বটিনা গ্রামে মুক্তি‌যোদ্ধা চাচা ধীরেন্দ্র নাথ বর্মণকে বাবা হি‌সে‌বে দেখিয়ে মু‌ক্তি‌যোদ্ধার ভাতা তোলার অভিযোগে ভাতিজা জগেন্দ্র নাথ বর্মণকে (৩৩) আটক করেছে পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক।

পুলিশের হাতে আটক হওয়া জগেন্দ্র নাথ বর্মণ সদর উপজেলার রাজাগাঁও ইউনিয়নের উত্তর বটিনা গ্রামের ধনি চরণ বর্মণের ছেলে।

জানা যায়, মুক্তিযোদ্ধা পর ১৯৯৫ সালে ধীরেন্দ্র নাথ বর্মণ ভারতে চলে যান। মা‌কে চাচার স্ত্রী আর নিজেকে চাচার সন্তান হি‌সে‌বে জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম বদলিয়ে মু‌ক্তি‌যোদ্ধার ভাতাসহ বিভিন্ন সু‌যোগ-সুবিধা ভোগ ক‌রে আসছিলো ভাতিজা জগেন্দ্র নাথ বর্মণ।
এবার দু-ভাই‌কে চাচার পুত্র হি‌সে‌বে দেখাতে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে রবিবার (১ নভেম্বর) বিকেলে জেলা নির্বাচন অফিসে আসলে নির্বাচন অফিস তার প্রতারণার বিষয়‌টি টের পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুনকে জানা‌ন। পরে ইউএনও এসে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে প্রতারণার কথা স্বীকার করলে তা‌কে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ইউএনও।

এ বিষ‌য়ে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন ব‌লেন, মু‌ক্তি‌যোদ্ধা চাচা‌কে বাবা হি‌সে‌বে জাতীয় পরিচয়পত্রে তুলে ধ‌রে সরকারি ভাতা পেয়ে আসছিল ভাতিজা জগেন্দ্র নাথ বর্মণ ও তার মা। তবে আজ তার চ্যাট ভাইদেরও পিতার নাম সংশোধন কর‌তে জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে আসলে তার প্রতারণার বিষয়‌টি জানা যায়।

আরও পড়ুন

  • এক্সক্লুসিভ এর আরও খবর