• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৫ নভেম্বর, ২০২০
সর্বশেষ আপডেট : ৫ নভেম্বর, ২০২০

বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পেতে মুখিয়ে আছেন সাকিব

অনলাইন ডেস্ক

মাত্র এক সপ্তাহ হচ্ছে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে উঠেছেন সাকিব আল হাসান। এরমধ্যেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের খেতাব পুণরায় নিজের করে নেন বাংলাদেশি এই পোস্টারবয়। এতে তার প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। হবেই বা কি করে তার যে স্বপ্ন বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ আস্বাদন করানো!

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এই স্বপ্নের কথাই ভক্তদের জানালেন সাকিব আল হাসান।

সাকিব বলেন, টি-টোয়েন্টিতে আমি জানি না আমরা কতটা এগিয়েছি। তবে এই সংস্করণের একটা সৌন্দর্য্য হলো, কেউ ফেবারিট নয়, যে কোনো দিন যে কোনো দল যে কাউকে হারাতে পারে। ওইটা আমাদের একটা ভরসা। যেহেতু আমরা এখন নিয়মিত টি-টোয়েন্টি খেলেছি, ২০১৫-১৬ থেকে অনেক ভালো একটা দল আমরা, অনেক বুঝতে পারি কিভাবে খেলা উচিত, সেটা আমাদের সাহায্য করবে আরেকটু ভালো খেলার জন্য।

তিনি বলেন, ২০২৩ বিশ্বকাপ এখনও বেশ দূরে। করোনাভাইরাসের কারণে সেভাবে খেলাও হয়নি। আমার মনে হয় না এটা নিয়ে কেউ ভাবতে পেরেছে। হয়ত এক-দেড় বছর আগে থেকে ওটা নিয়ে ভাবনা শুরু হবে।

“সেরা মুহূর্ত এখনও আসেনি। সেরা মুহূর্ত হবে বাংলাদেশের হয়ে কোনো বিশ্বকাপ জয়, সেটা ওয়ানডে হোক বা টি-টোয়েন্টি। এ পর্যন্ত যদি মনে করি, সেরাগুলোর একটি হলো অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে টেস্ট ম্যাচ জয় ও এবারের বিশ্বকাপে আমার পারফরম্যান্স, ব্যক্তিগত দিক থেকে।”

আগামী তিন বছরে বিশ্বকাপ হবে তিনটি। ২০২১ ও ২০২২ সালে পরপর দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ২০২৩ সালে হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। এই বিশ্ব আসরগুলিতে বাংলাদেশের স্বপ্ন জয়ের একটি সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে নিজের প্রস্তুতির ঘাটতি পূরণ করতে মরীয়া হয়ে উঠেছেন সাকিব। বিকেএসপিতে চার সপ্তাহের নিবিড় অনুশীলনের পরও পুরোপুরি কোর্স শেষ হয়নি সাকিবের। তার আগেই চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে। এই মাসে অনুষ্ঠিতব্য বিসিবির টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট দিয়ে সেই ঘাটতি পুষিয়ে দিতে চান বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

এ বিষয়ে সাকিব বলেন, বিকেএসপির অনুশীলন খুবই ভালো ছিল। ওই ট্রেনিং আমার খুব দরকার ছিল। যদিও আমার ইচ্ছে ছিল আরো ১৫-২০ দিন করার। যেহেতু শ্রীলঙ্কা সিরিজটি হয়নি, ওটা আর চালিয়ে যাওয়া হয়নি। চলে এসেছি যুক্তরাষ্ট্রে। আরো ১৫-২০ দিন করতে পারলে পরের ১-২ বছরের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুতি হয়ে যেত।

পাঁচটি দল নিয়ে নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে বিসিবির টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা রয়েছে। তার আগে হতে পারে প্লেয়ার্স ড্রাফট। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রিকেটে ফিরবেন সাকিব।

তিনি বলেন, তবে যেহেতু সামনে সময় আছে, সামনে একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আছে, ওই ১৫-২০ দিনের ট্রেনিংয়ের যে গ্যাপটি ছিল, আমার ধারণা আমি পূরণ করতে পারব।

আরও পড়ুন

  • এক্সক্লুসিভ এর আরও খবর