• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২১ জুলাই, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ২১ জুলাই, ২০২১

মমতাকে কটাক্ষ করে শুভেন্দুর অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে উপনির্বাচন করানোর দাবিতে বিগত বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে কথা বলছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এজন্য নির্বাচন কমিশনেও গিয়েছে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। তৃণমূলের এই ‘মরিয়া’ ভাবকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি দাবি করেন, উপনির্বাচন করাতেই নাকি রাজ্য সরকার কোভিড পরিসংখ্যানে কারচুপি করছে। সংক্রমণের সংখ্যা কম করে দেখাচ্ছে। তবে এর পাল্টা জবাবও দিয়েছে ঘাসফুল শিবির।

 

বুধবার (২১ জুলাই) এসব জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস। প্রতিবেদনে বলা হয়, শুভেন্দু বলেছেন, ‘ছটফট করছেন নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রী। ৪ নভেম্বরের মধ্যে জিততে না পারলে মুখ্যমন্ত্রিত্ব খোয়াতে হবে। প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির মালিক। আর তো কেউ নেই মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার মতো। একটাই পোস্ট। বাকি সব ল্যাম্পপোস্ট। তাই সব জায়গায় বলেছে, করোনা কম দেখাও। না হলে আমি আর মুখ্যমন্ত্রী থাকতে পারব না।’

শুভেন্দু উত্তরাখণ্ডের উদাহরণ টেনে এনে বলেন, ‘সংবিধানে ছয় মাসে জিতে আসার কথা বলা রয়েছে। কিন্তু তার পরে কী হবে লেখা নেই। উত্তরাখণ্ডে আমাদের নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রী ছিল। আমরা বদলে এমএলএ-কে মুখ্যমন্ত্রী করেছি। বিজেপি মানুষের স্বাস্থ্যের কথা আগে ভাবে।’ এদিকে শুভেন্দুর এহেন অভিযোগের প্রেক্ষিতে পালটা তোপ দেগেছেন তৃণমূলের মুখপাত্র তাপস রায়। তিনি সংবাদমাধ্যমকে এ বিষয়ে বলেন, ‘বিরোধী দলনেতা যে সুরে কথা বলছেন, তা শুনে কি তাহলে ধরে নেব যে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত বিজেপি নেতারা নিচ্ছেন?’

আরও পড়ুন