• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২ আগস্ট, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ২ আগস্ট, ২০২১

ফের হামাসের প্রধান হলেন ইসমাইল হানিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইসমাইল হানিয়া আবারও ফিলিস্তিনি সংগঠন হামাসের প্রধান হিসেবে পুনর্র্নিবাচিত হয়েছেন। রবিবার হামাসের পক্ষ থেকে সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয় এ তথ্য। ২০১৭ সাল থেকে ইসমাইল হানিয়া সংগঠনটির রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিলিস্তিনের একজন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে ইসমাইল হানিয়ার পুনর্র্নিবাচিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, চার বছর ধরে হামাসের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ইসমাইল হানিয়া। সম্প্রতি সংগঠনের সদস্যদের অভ্যন্তরীণ ভোটাভুটিতে তিনি দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন।

গাজা উপত্যকায় হামাসের প্রতিষ্ঠাতা শেখ আহমেদ ইয়াসিনের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ছিলেন ইসমাইল হানিয়া। ২০০৪ সালে ইসরায়েলি বিমান হামলায় শেখ আহমেদ ইয়াসিন নিহত হন। এর পর হামাসে ইসমাইল হানিয়ার প্রভাব আরও বিস্তৃতি লাভ করে।

ফিলিস্তিনের রাজনীতিতে ইসমাইল হানিয়ার সরাসরি উত্থান ২০০৬ সালে। মাহমুদ আব্বাসের নেতৃত্বাধীন বিভক্ত ফাতাহ দলের বিপরীতে নির্বাচনে জয় পায় তার দল। এ জয়ের পর ইসমাইল হানিয়া ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রীও হয়েছিলেন।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র, ইসরায়েল, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় হামাসের গায়ে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ বলে বিবেচনা করে আসছে। যদিও পশ্চিম তীর ও গাজা উপত্যকায় হামাসের প্রভাব এখনো প্রবল।

২০০৭ সাল থেকে ইসরায়েল গাজার ওপর অবরোধ আরোপ করে রাখে। চলতি বছরের মে মাসে ইসরায়েলের হামলায় ২৫০ জনের বেশি সাধারণ ফিলিস্তিনি নিহত হন। এর প্রতিবাদে গাজা থেকে ছোড়া রকেট হামলায় ১৩ জন ইসরায়েলি নিহত হন। এই হামলার নেতৃত্বে ছিলেন ৫৮ বছর বয়সী ইসমাইল হানিয়া। যদিও পরে শান্তি চুক্তিতে যুদ্ধবিরতি অবস্থান মেনে নেয় দুই পক্ষই।

আরও পড়ুন