• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

যশোরে ৫টি চোরাই মোটর সাইকেল সহ আটক ৪

অনলাইন ডেস্ক

যশোর জেলা গোয়েন্দা ডিবি পুলিশের অভিযানে আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের চার সদস্য গ্রেফতার সহ পাঁচটি চোরাই মোটরসাইকেল, দুইটি মাষ্টার চাবি, মোটরসাইকেল পাঠানো কুরিয়ার সার্ভিসের কপি উদ্ধার করেছে।

পুলিশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, পুলিশ সুপার এর নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা ডিবি পুলিশের ইনচার্জ ওসি রুপন কুমার সরকার পিপিএম এর নেতৃত্বে এলাকায় এবং চুয়াডাঙ্গা জেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা চোর চক্রের মোট চার সদস্যকে গ্রেফতার সহ তাদের হেফাজত থেকে ৫টি চোরাই মোটরসাইকেল ২ মাষ্টার চাবী, চোরাই মোটরসাইকেল প্রেরনের কুরিয়ার কপি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর থানার চিংড়ীখালী এলাকার মজিদ সরকার ওরফে মজিদ গাজীর ছেলে আলামিন ওরফে আলমগীর (৪০), যশোর জেলার বাঘারপাড়া থানার খানপুর এলাকার ছমির বিশ্বাসের ছেলে খাইরুল ইসলাম কাজল ওরফে কাজল বিশ্বাস (৫৬), চুয়াডাঙ্গা জেলার চুয়াডাঙ্গা থানার কাউন্সিলপাড়া এলাকার মৃত-মনির হোসেনের ছেলে সোহানুর রহমান তমাল ওরফে মামুন (২৮), ও একই থানার রাজাপুর মল্লিকপাড়া এলাকার শওকত আলী ওরফে শকোর ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৮)।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামীরা একটি সংঘবদ্ধ মোটরসাইকেল চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা যশোর জেলাসহ আশপাশের মোটরসাইকেল চুরি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে কুরিয়ারের মাধ্যমে ও সরাসরি ক্রয়-বিক্রয় করে।

পুলিশ আরো জানায়, গ্রেফতারকৃত আলামিনের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় দুইটি অস্ত্র, দুইটি হত্যা, একটি মাদক, নয়টি মোটরসাইকেল চুরি মামলাসহ ১৪টি মামলা ও ওয়ারেন্ট মূলতবী রয়েছে। সাদ্দামের বিরুদ্ধে ১টি অস্ত্র, ১টি মাদক, ৩টি মোটরসাইকেল চুরি মামলাসহ ৫টা মামলা রয়েছে। খাইরুল ইসলাম সবুজের বিরুদ্ধে ১টি ডাকাতি মামলাসহ ৩টি মামলা, সোহানুর রহমান তমালের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন জেলায় ০৫টি মোটরসাইকেল চুরি মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

আরও পড়ুন