• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ হবে: সেতুমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

শতভাগ সচ্ছতার সঙ্গে সব প্রকল্পের নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে। এতে কোনো নয়-ছয় করার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে (DAEEP) নির্মাণ প্রকল্পের পরীক্ষামূলক পাইল বোরিং কাজের উদ্বোধনের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে তুরাগ থানার ধউর এলাকায় সবুজ নিশান উড়িয়ে পাইল বোরিং কাজের সূচনা করেন মন্ত্রী। এ সময় তিনি বলেন, এই প্রকল্পের কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন। এখানে কোনো ধরনের নয়-ছয়ের সুযোগ নেই।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অর্থায়নের কোনো সমস্যা নেই। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এ প্রকল্পের জন্য ঋণচুক্তি সম্পন্ন হবে।

মন্ত্রী বলেন, এখানে সড়কটি এমনই থাকবে। কারণ অনেক মানুষ বিকল্প পথ হিসেবে এই সড়ক ব্যবহার করে। মানুষের যেন ভোগান্তি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ১৬ হাজার ৯০১ দশমিক ৩২ কোটি টাকা। যার মধ্যে বাংলাদেশ সরকার বহন করবে ৫ হাজার ৯৫১ দশমিক ৪২ কোটি টাকা এবং চীন সরকার (G2G) বহন করবে ১০ হাজার ৯৪৯ দশমিক ৯১ কোটি টাকা।

চারলেন বিশিষ্ট এই এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের দৈর্ঘ্য হবে ২৪ কিলোমিটার। এয়ারপোর্ট-আব্দুল্লাহপুর-ধউর-বড় আশুলিয়া-জিরাবো-বাইপাইল হয়ে ঢাকা ইপিজেড গিয়ে শেষ হবে। এর সঙ্গে র‍্যাম্প হবে ১০ দশমিক ৮৪ কিলোমিটার, নবীনগরে ১ দশমিক ৯১৫ কিলোমিটার ফ্লাইওভার, চার লেনের ২ দশমিক ৭২ কিলোমিটার সেতু ও ১৮ কিলোমিটার ড্রেন। ২০২৬ সালের জুনে ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা-আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের প্রকল্প পরিচালক মো. শাহাবুদ্দিন খান, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ফারুক হাসান তুহিনসহ আরও অনেকে।

আরও পড়ুন

  • জাতীয় এর আরও খবর