• ঢাকা
  • রবিবার, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১

বেরোবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি

অনলাইন ডেস্ক

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) অর্থনীতি বিভাগের প্রধান জনি পারভীনের বিরুদ্ধে দায়িত্বহীন, স্বেচ্ছাচারিতা, হয়রানি, অসৌজন্যমূলক আচরণ, ক্ষমতার অপব্যবহারসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে বিভাগটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

আজ রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল দশটা থেকে তারা এই কর্মসুচী পালন করছেন।

জনি পারভীনকে বিভাগীয় প্রধান পদ থেকে অপসারণ না করা পর্যন্ত এই কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা জানান, জনি পারভীন বিভাগীয় প্রধান হিসেবে যোগদান করার পর থেকে অবৈধভাবে অনুপস্থিত থেকেছেন। তিনি যখন বিভাগে অনুপস্থিত থাকেন তখন তিনি জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে কাউকে দায়িত্ব দেন না। এ কারণে বিভাগ নানা সমস্যায় ভুগছে।

এমনকি দীর্ঘ ১ বছর সাত মাস বিভাগে কোন এ্যাকাডেমিক কমিটির সভা করেননি। এ কারণে দীর্ঘ সেশনজটে শিক্ষার্থীরা চরম ক্ষতির মুখে পড়েছেন।

তারা আরো জানান, শিক্ষক শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে অসাদাচারণ করেন। শিক্ষকদের আপগ্রেডেশনের আবেদনের জন্য অভিজ্ঞতা সনদ অগ্রায়নের আবেদন, শ্রান্তি বিনোদনের আবেদন কর্তৃপক্ষের কাছে না পাঠিয়ে দীর্ঘদিন আটকে রেখেছেন। তার এমন কর্মকান্ডে শিক্ষকদের ক্যারিয়ার হুমকির মুখে পড়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী নোবেল জানান, আমরা দীর্ঘ সেশনজটে পড়েছি। এতে করে আমাদের চাকুরির বয়স শেষ হচ্ছে। বিভাগীয় প্রধাস কোন উদ্যাগ নেয়নি, এ কারণে আমরা তার অপসারণ চাই।

এ বিষয়ে অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনি পারভীন বলেন, যারা অনিয়ম করেছে, দুর্নীতি করেছে, শিক্ষার্থীদের রেজাল্ট না দিয়ে আটকিয়ে রেখেছে, তিনটি এ্যাকাডেমিক মিটিং এ আসেনি, তারাই আজ আন্দোলন করছে। আমি বিষয়টি ভিসি স্যারকে জানিয়েছি। তাদের এ অন্যায় মেনে নেয়া যায় না। পুরো বিষয়টি আমি প্রেস কানফারেন্স করে জানাবো।

আরও পড়ুন

  • এক্সক্লুসিভ এর আরও খবর