• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২১ ডিসেম্বর, ২০২১
সর্বশেষ আপডেট : ২১ ডিসেম্বর, ২০২১

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ: অনুশীলনে বাংলাদেশ, অভাব নেট বোলারের

অনলাইন ডেস্ক

নিউজিল্যান্ডের বন্দিদশা কেটেছে বাংলাদেশ দলের। সাত দিনের কোয়ারেন্টিন হয়ে দাঁড়িয়েছিল ১১ দিনের। এই বন্দিজীবন থেকে বের হয়ে মঙ্গলবার প্রথম দিনের মতো অনুশীলন করেছে টাইগাররা।

সকালে ক্রাইস্টচার্চের লিংকন ইউনিভার্সিটি মাঠে টাইগাররা হাজির হয় দলবলে অনুশীলন করতে। এ সময় দেখা যায় মুশফিকুর রহিমকে বোলিং করছেন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন।

এ সময় খালেদ মাহমুদকে বলতে শোনা যায়, ‘নেট বোলার নেই, কী করব?’ করোনাভাইরাসের কারণে ক্রিকেটও ছোট হয়ে এসেছে। স্বাগতিক বোর্ড যেখানে সফরকারী দলের অনুশীলনের জন্য নেট বোলার দিত, এখন সেটিও নেই।

এতসব কিছু মেনে নিয়েই লম্বা সময় ধরে চলে অনুশীলন, সঙ্গে চলে আড্ডা। যেখানে দেখা যায় বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে দলের সবাই। প্রথম দিনের অনুশীলন খুব একটা কঠিন না হলেও হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো জানিয়েছেন, ধীরে ধীরে বাড়বে অনুশীলনের কঠোরতা।

‘দীর্ঘ ১১ দিন রুমে থাকা বেশ কঠিন। এখন সবাই বেরিয়েছি, খোলা আকাশের নিছে শ্বাস নিচ্ছি, ছেলেরাও বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছে। আগামী দু-একদিন কিছুটা হালকা অনুশীলন হবে। এরপর পুরদমে ব্যাটিং-বোলিং শুরু হবে। প্রথম টেস্টের আগে আমরা তাওরাঙ্গা চলে যাব। সেখানে টানা ছয়দিনের কঠোর অনুশীলন চলবে। আশা করছি ছেলেরা তখন টেস্ট ম্যাচের যে ইনটেনসিটি আছে তা ফিরে পাবে।’

সূচি অনুযায়ী প্রথম টেস্টের আগে তাওরাঙ্গায় একটি অনুশীলন ম্যাচ খেলার কথা টাইগারদের। ৯ জানুয়ারি ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হবে।

আরও পড়ুন

  • স্পোর্টস এর আরও খবর