শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা
নিউজ ডেস্ক:
প্রকাশ: সোমবার, ১৭ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৩৩ সকাল | অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরে নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর শনিবার (১৫ অক্টোবর) রাতে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করলে গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত ইউপি সদস্য। রবিবার (১৬ অক্টোবর) জেলা সদর হাসপাতালে ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

ওই ইউপি সদস্যের নাম আরিফুল ইসলাম আরিফ (৩৩)। তিনি সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান সদস্য এবং পাকুড়িয়া খামারপাড়া এলাকার মো. আলাল উদ্দিনের ছেলে।

 

ভুক্তভোগীর পরিবার ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, প্রতিবেশী ও জনপ্রতিনিধি হওয়ার সুবাদে ইউপি সদস্য আরিফ নবম শ্রেণির ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন। এক পর্যায়ে ওই স্কুলছাত্রীর উপর আরিফের কু-নজর পড়ে। এ বিষয়টি স্কুলছাত্রী তার বাবা-মাকেও জানায়। গত ১১ অক্টোবর রাতে আরিফ গোপনে ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে প্রবেশ করে তার মুখ বেঁধে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে।

পরে এ বিষয়ে মেয়েটি তার বাবা-মাকে জানালে তারা মামলা করতে চাইলে প্রভাবশালীদের ইন্ধনে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। তবে বিষয়টি পুলিশের কানে গেলে পুলিশ ভুক্তভোগীর মাসহ অভিভাবকদের থানায় নিয়ে এসে বিস্তারিত শুনেন। পরে ওই ঘটনায় শনিবার (১৫ অক্টোবর) রাতে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে ইউপি সদস্য আরিফের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। মামলায় ধর্ষণের সহযোগী হিসেবে মো. চাঁন মিয়া নামে আরও একজনকে আসামি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল জানান, স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। রবিবার জেলা সদর হাসপাতালে ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। অভিযুক্তকে ধরতে পুলিশের জোরালো অভিযান চলছে।

« পূর্ববর্তী সংবাদ পরবর্তী সংবাদ »






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ